শোবিজের অনেক তারকাকে নিয়েই অনেক প্রশ্ন

0
23
15 august

পরীমনি বাংলা চলচ্চিত্রের মূল ধারার নায়িকা এবং এই মুহূর্তে দেশের অন্যতম প্রধানতম নায়িকাও বলা যায় তাকে। সেই পরীমনির জীবনের যে অধ্যায় আজ বেরিয়ে এসেছে তাতে কিন্তু সাধারণ মানুষ বিস্মিত হয়নি। সাধারণ মানুষের অনেকেই জানতো পরীমনির উচ্ছৃঙ্খল জীবনযাপনের কথা, তাঁর নেশা আসক্তির কথা। বিভিন্ন গণমাধ্যমে পরীমনির উচ্ছৃঙ্খল জীবন, বিভিন্ন ক্লাবে গিয়ে ভাংচুরের ঘটনা আগেও প্রকাশিত হয়েছে। তার বাসায় মদের যে বার আছে সেই বারের ছবিও সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু যে প্রশ্নটি সবকিছু ছাপিয়ে বড় হয়ে উঠেছে তা হলো যে, পরীমনি কি শুধু একা?

শোবিজের ব্যাপারে খোঁজখবর রাখেন এমন অনেকেই বলছেন যে পরীমনি একা না। পরীমনি তো তাও ঢাকাই ছবিতে বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছেন, বিজ্ঞাপনের মডেলিং করে মোটা অর্থ নিয়েছেন। কিন্তু শোবিজে এমন অনেক তারকাই আছেন যাদের বৈধ আয়ের কোন উৎস নাই, তারা কি করেন কেউ জানেনা। তারা সর্বশেষ নাটক-সিনেমা কবে করেছেন সে সম্পর্কেও কোন তথ্য নাই। কিন্তু তারা যে জীবন যাপন করেন, যেভাবে দামি গাড়ি চালান, দামী ফ্ল্যাটে থাকেন তা অনেকেই বিস্মিত এবং হতবাক করে। তবে র‍্যাবের এই পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযানের মধ্য দিয়ে একটা বিষয়ে মানুষ আশাবাদী হয়েছে যে এরকম অন্যায় করে বেশিদিন পার পাওয়া যায়না। মানুষ আশা করে পরীমনির যে অকথিত অধ্যায় যেমন উন্মোচিত হয়েছে তেমনি যারা শোবিজের নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন অপকর্ম এবং অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপনের সাথে জড়িত তারাও আইনের আওতায় আসবে এবং তাদেরও মুখোশ উন্মোচিত হবে।

nagad 011
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ শোবিজের বিশেষ করে চলচ্চিত্রের বাজারটা খুবই ছোট এবং তা এখন ক্রমশ সংকুচিত হচ্ছে। এখন নূন্যতম বা কম বাজেটে ছবি হয়। চলচ্চিত্রে বাংলাদেশ হাতেগোনা তারকা পাঁচ-সাত জন। ছেলে তারকাদের মধ্যে শাকিব খান ছাড়া আর কোন হিট সিনেমার নায়ক নেই। আর নারীদের মধ্যে যে পাঁচ-ছয়জন আছেন তাদেরকে সম্বল করেই আমাদের চলচ্চিত্র ধুকে ধুকে চলছে। কিন্তু চলচ্চিত্র তারকা ব্যবহার করে যাদের প্রায় প্রতিদিনই ছবির জন্য চুক্তিবদ্ধ হওয়ার খবর বের হয় কিন্তু সে সমস্ত ছবি আলোর মুখ দেখে না, সেই সমস্ত তারকাদের খবর কি? তারা চলেন কিভাবে? একজন শোবিজের তারকা রয়েছেন যার একটি বা দুটি ছবিই এখন পর্যন্ত মুক্তি হয়েছে কিন্তু তিনি এক ধরনের বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন। এরকম একজন নয়, এরকম বেশ কয়েকজন আছে। আবার ইদানীং শোবিজের কোন কোন তারকাদেরকে দেখা যায় যে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে উৎসাহী হতে এবং কয়েকটি নির্বাচনে শোবিজের এরকম কয়েকজন তারকা রাজনীতির মাঠেও সরব ছিলেন। বিভিন্ন নির্বাচনী প্রচারণায় তাদেরকে তৎপর দেখা গেছে। এই তারকাদের মধ্যেও কতজন ব্যস্ত বা নিয়মিত অভিনয় করেন সে প্রশ্ন অনেকের মধ্যে এখন উঁকি দিচ্ছে।

বাংলাদেশের নাটকের বাজারেও মন্দাভাব। নাটকের বাজারে যে হাতেগোনা কয়েকজন ব্যস্ত তারকার বাইরে অনেক বেশিরভাগই কর্মহীন। কিন্তু তারা চলছেন কিভাবে সেটি একটি বড় প্রশ্ন বটে। আর সবচেয়ে বড় কথা হলো, এখন বাংলাদেশে নতুন আতঙ্ক তৈরি হয়েছে ওয়েব সিরিজ। ওয়েব সিরিজের নামে এক ধরনের অশ্লীলতা এবং কুরুচিকে উস্কে দেয়া হচ্ছে এবং সেই গড্ডালিকা প্রবাহে গাঁ ভাসাচ্ছেন অনেকে। কাজেই পরীমনির এই ঘটনাই যেন শেষ ঘটনা না হয়, এই ঘটনার মধ্যে দিয়ে শোবিজেও যেন একটি শুদ্ধি অভিযান পরিচালিত হয় সেটি সংশ্লিষ্ট সকলের প্রত্যাশা।

বিজ্ঞাপন